বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সতর্ক বার্তা

সংবাদ জমিন, অনলাইন ডেস্ক ঃঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে সত  দেশের বন্যা দুর্গত এলাকায় দুর্দশনায় পড়া মানুষের জন্য ত্রাণের যেন ঘাটতি না হয় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে এক অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় সরকারপ্রধান এই নির্দেশনা দেন বলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন। সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানানোর সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে, বন্যা নিয়ে সবাইকে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী কি নির্দেশনা দিয়েছেন, সেই প্রশ্নে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, কোনোভাবেই মানুষের যেন কোনো ক্ষতি না হয় এবং রিলিফের যেন কোনো ঘাটতি না হয়। বিশেষ করে নিচু এলাকা এবং চরে যারা থাকেন, তারা বাঁধের দিকে বা আশ্রয়কেন্দ্রে চলে আসেন, স্কুলে চলে আসেন। সেখানে যেন তাদের জীবন বা খাবারের অসুবিধা না হয়। (আশ্রয়কেন্দ্রে) টয়লেট ফ্যাসিলিটি, ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট যেন থাকে। আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা মন্ত্রণালিয়সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া আছে, ইউনিয়ন পর্যায়ে যারা কাজ করেন, মানুষের পাশে তাদের থাকতে হবে।মন্ত্রিসভায় অনানুষ্ঠানিক আলোচনা হয়েছে যে, রিলিফ অপারেশন, রেসকিউ অপারেশন- এগুলো কীভাবে হচ্ছে, এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এখন মূলত যমুনা ও পদ্মা হয়ে পানি আসছে। সুনামগঞ্জ-সিলেটে মেঘনার পানি ছিল ঢলের মত, ৬-৭ দিনে নেমে গেছে। ডিসি, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট সবাই এ বিষয়ে প্রস্তুত আছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরাও এটা রেগুলার মনিটর করছি

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.