বনানী কবর স্থানে মায়ের কবরের পাশেই দাফন করা হলো সাহারা খাতুনকে

 

অনলাইন ডেস্ক ঃ

রাজধানীর বনানীতে দ্বিতীয় জানাজা এবং রাষ্ট্রীয় ও দলীয় শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। আজ শনিবার (১১ জুলাই) দুপুর পৌঁণে ১২টার দিকে বনানী কবরস্থানে মায়ের কবরে প্রবীণ এই রাজনীতিককে সমাহিত করা হয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ১০ টার দিকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বাইতুশ শরফ জামে মসজিদে মরহুমা সাহারা খাতুনের প্রথম জানাজা হয়। এরপর বেলা ১১টার দিকে বনানী কবরস্থানে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তার বিদেহী আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। প্রথমে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান তার সহকারী সামরিক সচিব কর্নেল রাজু আহমেদ। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকীব আহমেদ। পরে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এছাড়া আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম তার মরদেহের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এর আগে শুক্রবার দিনগত রাত ২টার দিকে সাহারা খাতুনের মরদেহ বহনকারী বিমান হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২৬ মিনিটে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৭৭ বছর বয়সী এ রাজনীতিক। সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন ৭৭ বছর বয়সী এই নারী রাজনৈতিক। অ্যালার্জিজনিত সমস্যা নিয়ে ২ জুন রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা তাকে। তারপর থেকেই অবস্থার অবনতি ঘটে তার। কয়েকদফা আইসিইউ’তে চিকিৎসা দেয়ার এক পর্যায়ে গত ৬ জুলাই এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। সাহারা খাতুনের বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি চিরকুমারী ছিলেন। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা পৃথক শোক বার্তায় প্রবীণ রাজনীতিক সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন। সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে রাজনৈতিক অঙ্গণে শোকের ছায়া নেমে আসে। আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শোক জানান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.