সাহিত্যের কিংবদন্তি শেখ ওয়াজেদ আলি

——- এসএ আহসান উদ্দিন ঃঃ
সাহিত্যিক, প্রাবন্ধিক, ভ্রমণকাহিনী লেখক এস ওয়াজেদ আলির জন্ম ১৮৯০ সালের আজকের এই দিনে তাঁর স্মৃতির প্রতি আমাদের গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি। এস ওয়াজেদ আলি (৪ সেপ্টেম্বর ১৮৯০ – ১০ জুন ১৯৫১) ছিলেন একজন প্রখ্যাত বাঙালি প্রাবন্ধিক। তিনি মূলত ‘এস ওয়াজেদ আলি’ নামেই অধিক পরিচিত। তিনি বঙ্গীয় মুসলমান সাহিত্য সমিতির সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।
জন্ম ও পারিবারিক পরিচয় ঃ
শেখ ওয়াজেদ আলি ১৮৯০ সালের ৪ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার শ্রীরামপুর মহকুমার বড় তাজপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে বি.এ পাশ করেন। ১৯১৫ সালে ব্যারিস্টারি পাশ করেন। তিনি তার কর্মজীবনে প্রেসিডেন্সী ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন। ১৯৪৫ সালে অক্টোবরে অবসর গ্রহণ করেন। সমকালীন মুসলমান সাহিত্যিকদের মধ্যে পাশ্চাত্য শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত একজন লেখক হিসাবে প্রতিপত্তি লাভ করেন। তার পিতার নাম শেখ বেলায়েত আলী। তিনি ছিলেন একজন ব্যবসায়ী এবং শিলংয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করতেন।
সাহিত্যকর্মঃ গুলদাস্তা (১৯২৭) – গল্প, মাশুকের দরবার (১৯৩০) – গল্প, জীবনের শিল্প (১৯৪১) – প্রবন্ধ, প্রাচ্য ও প্রতীচ্য (১৯৪৩) – প্রবন্ধ, ভবিষ্যতের বাঙালী (১৯৪৩) – প্রবন্ধ, গ্রানাডার শেষ বীর (১৯৪০) – ঐতিহাসিক উপন্যাস, বাদশাহী গল্প (১৯৪৪) – গল্প, গল্পের মজলিশ (১৯৪৪) , পশ্চিম ভারত (১৯৪৮) – ভ্রমণকাহিনী, আকবরের রাষ্ট্র সাধনা (১৯৪৯) – প্রবন্ধ, মোটর যোগে রাঁচী সফর (১৯৪৯) – ভ্রমণকাহিনী, মুসলিম সংস্কৃতির আদর্শ – প্রবন্ধ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.