ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে শক্তিমত্তা জানান দিল হামাস

সংবাদ জমিন, অনলাইন ডেস্ক ঃঃ

ভূমধ্যসাগরে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে হামাস। এই ঘটনাকে হামাসের পক্ষ থেকে ইসরায়েলের জন্য পরিষ্কার সতর্কবার্তা হিসেবে দেখা হচ্ছে। যখন গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের অব্যাহত অবরোধ ও দফায় দফায় ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরায়েলি বাহিনীর আগ্রাসন চলছে তখন এই ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ঘটনা ঘটলো।

ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সোমবার কমপক্ষে আটটি ক্ষেপণাস্ত্র ফিলিস্তিনের আকাশ দিয়ে ভূমধ্য সাগরের দিকে ছুটে যায়। এ সময় অবরুদ্ধ গাজার লোকজন ব্যাপক উল্লাস প্রকাশ করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হামাসের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র এএফপি-কে জানিয়েছেন, ভূমধ্যসাগরে হামাসের পক্ষ থেকে এই ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার মাধ্যমে ইসরাইলকে এই বার্তা দেয়া হয়েছে যে, তাদের জানা উচিত তেল আবিবের আগ্রাসনের মুখে হামাস নীরব থাকবে না। হামাস সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার প্রশংসা করে বলেছে, এটি প্রতিরোধের জন্য নেয়া পদক্ষেপ।

২০০৭ সালের জুন মাস থেকে গাজা উপত্যকার ওপর ইসরায়েল স্থল, আকাশ এবং সমুদ্রপথের অবরোধ দিয়ে রেখেছে। ওই বছর হামাস নির্বাচনের মাধ্যমে ফিলিস্তিনে সরকার গঠন করে। হামাসের সরকারকে প্রতিহত করতে ইসরায়েল গাজার ওপর অবরোধ দেয়। তবে এই অবরোধ ভেঙে দেয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে হামাস।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.