নেয়াখালীতে ছেলেকে পুড়িয়ে হত্যা করল তার মা ও বোন

নোয়াখালী প্রতিনিধি ঃঃ
নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে মঈন উদ্দিন সাদ্দামের (২৭) গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা মামলার অন্যতম আসামি ও মূল পরিকল্পনাকারী নিহতের পিতা মোস্তফা চৌধুরীকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে সিআইডি পুলিশ। বুধবার (৪ নভেম্বর) ভোর ৫টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোনাইমুড়ী ছাতারপাইয়া এলাকা থেকে পলাতক মোস্তফা চৌধুরীকে আটক করে। এর আগে সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কাছে মামলাটির দায়িত্ব থাকলেও তারা আসামিকে গ্রেফতার করতে ব্যর্থ হয়।
সিআইডি নোয়াখালী জেলা তদন্তকারী কর্মকর্তা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বলেন, মামলার ঘটনা সংক্রান্তে আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদসহ অন্যান্য আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার কাশিপুর মধ্যপাড়া গ্রামে পিতা মোস্তফা চৌধুরীর নির্দেশে বড় বোন কুলসুম আক্তার ধনি ও মা রায়হানা বেগম সাদ্দামের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তার। এ সময় তার আত্মচিৎকার শুনে এলাকাবাসী এসে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ বার্ন ইউনিটে ভর্তি করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় (১৩ নভেম্বর ২০১৮) ঢাকার একটি হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনা নিহতের তার স্ত্রী আসমা আক্তার বাদী হয়ে সোনাইমুড়ী থানায় ৩ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.

শিরোনাম