টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করল পিতাকে

 

সংবাদ জমিন ডেস্ক ঃঃ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় ধলাপাড়া ইউনিয়নের হেংগের চালা গ্রামে সমেস উদ্দিন (৫৫) নামে পিতাকে কোদাল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে পাষণ্ড ছেলে হাসু মিয়া। অভিযুক্ত হাসু মিয়া দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত ছিল। জানা যায়, বাবার কাছে নেশার টাকা চেয়ে না পাওয়ার কারণে বাবা নামের এই বটগাছটিকে সে চিরতরে উপড়ে ফেলে। গত শনিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন ধলাপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, হাসু মিয়া দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক সেবন করতো। একপর্যায়ে সে প্রতিবন্ধীর মতো হয়ে যায়। মাদক কেনার টাকার জন্য প্রায় তার বৃদ্ধ বাবা-মাকে মারধর করতো। গত তিন বছর আগে হাসু মিয়ার অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে ঘরের ভেতর শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে।

ফলে বাবা সমেস উদ্দিনের প্রতি তার ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এর আগে বাবাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয় হাসু। গত শনিবার রাতে যে খুঁটিতে হাসুকে বেঁধে রেখেছিল সেই খুঁটি তুলে শিকল খুলে ফেলে। পরে ঘরে ঢুকে মাটি কাটার কোদাল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তার বাবা সমেসকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পর পরই স্থানীয়রা অভিযুক্ত হাসুকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। পরে তাকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.

শিরোনাম