মৌলভীবাজারের শিশু নির্যাতনকারী কুদ্দুস ও রিপন গ্রেফতার

সংবাদ জমিন ডেস্ক ঃঃ
এতিম শিশু মোঃ আব্দুল আলী টলি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। কয়েকদিন ধরে তার শরীরে প্রচণ্ড জ্বর থাকায় গাড়ি চালাতে যেতে পারেনি। এদিকে টলি বন্ধ থাকায় টলির মালিক পারভেজ তার উপর ভীষণ ক্ষিপ্ত। একদিন সকালে পারভেজ ঔষধ কিনে দেওয়ার কথা বলে আলীকে তার বাড়ীতে নিয়ে আসে। তারপর আলীর চোখ বেঁধে পারভেজ শুরু করে শারীরিক নির্যাতন। সে শুধু একা নন! তার সঙ্গে যুক্ত হয় আরো কয়েকজন যুবক। তারা কয়েক দফায় আলীর উপর চালায় নির্মম নির্যাতন।
অতিমাত্রায় শারিরীক নির্যাতনের কারণে আলীর শারীরিক অবস্থা যখন বেশ খারাপ হয়, তখন বেলা ২টার দিকে তারা ৮নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্যের কাছে আলীকে রেখে চলে যায়। ইউপি সদস্য নোমান শিশুটির মৃত্যুর আশঙ্কায় তাকে অপর একজনকে দিয়ে তার বাড়ির পাশের রাস্তায় ফেলে দিয়ে আসেন। মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ১০নং হাজীপুর ইউনিয়নের পীরের বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আব্দুল আলী (১৩) এখন মোলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এই ঘটনায় কুলাউড়া থানায় মামলা হলে পুলিশ কুদ্দুস ও রিপন নামে দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে। মূল আসামি পারভেজ পলাতক রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.