মাদারগঞ্জে মা ছেলে খুন

মাদারগঞ্জ (জামারপুর ) প্রতিনিধি ঃঃ

জামালপুরে মাদারগঞ্জ উপজেলার ৩নং গুনেরীতলা ইউনিয়নে চর গোপালপুর গ্রামের ফজলুল হকের বাড়ি থেকে মা ছেলের লাশ উদ্ধার করে মাদারগঞ্জ থানা পুলিশ। মাদারগঞ্জের এসআই সুমন চক্রবর্তী জানান, এলাকাবাসীর কাছ থেকে ঘটনার খবর পেয়ে গতকাল সকাল ৯টার সময় মোসলিমা আক্তার শিখা (৩৫) ছেলে তওহিদ (৩) এর রক্তাক্ত লাশ খাটের উপর থেকে উদ্ধার করা হয়। মোসলিমা আক্তার শিখার মাথায় এবং নাভীর বাম পাশে দুটি ছুরিকাঘাত পাওয়া যায়, ছেলে তওহিদের বুকের ডান পাশে ছুরিকাঘাত পাওয়া যায়, এবং বাড়ির মধ্যে খড়িঘর থেকে রক্তমাখা শার্ট, লুঙ্গি ও অন্যান্য আলামত দা, বেরি পুলিশ উদ্ধার করে। মৃত মোসলিমার স্বামী হারুন রশিদ পলাশকে ওই বাড়ি থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। মোসলেমার ভাই খোকন জানান, গত রাত পৌনে ৩ ঘটিকার সময়  দুলাভাই হারুন রশিদ ফোন করে বলে তোমার বোন, ভাগিনাকে কে যেন খুন করেছে এটা সোনার পর আর ভালোভাবে কথা বলতে পারিনি। তবে এলাকাবাসীর ধারণা হারুন রশিদের সঙ্গে কোনো একজনের সঙ্গে পরকীয়া চলছিলো, পরকীয়ার জের ধরেই এই খুনের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা এলাকাবাসীর, মৃত মোসলেমার মেয়ে বলেন, মা এবং ভাইকে যে খুন করেছে তার শাস্তি দাবি করেন, মাদারগঞ্জ থানা ওসি রফিকুল ইসলাম জামালপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সীমা রানি সরকার জেলা পুলিশ সুপার মো. দেলোয়ার হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, জেলা পুলিশ সুপার মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যাকা- ঘটিয়েছে, এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মৃতের স্বামী হারুন রশিদ (৩৮) পলাশকে আটক করেছি, তবে খুব তাড়াতাড়ি হত্যাকা-ের রহস্য উদঘাটন করা হবে বলে জানান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.