সিংগাইরে চাপরাইলে অজ্ঞাত শিশুর কবরের জট খুলতে শুরু করেছে

প্রতিকী ছবি

আবু সায়েম ঃঃ

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে চাপরাইল গ্রামের কবর স্থানে অজ্ঞাত শিশুর কবরের অবশেষে জট খুলতে শুরু করেছে। এলাকায় চলছে নানামুখী গুঞ্জণ। কবরস্থান কমিটিকে জানানো ছাড়া কিভাবে এই লাশ দাফন করা হলো তা নিয়ে এলাকাবাসী টালমাটাল। শিশুটির জানাযা পড়া হয়েছে, নাকি জানাযা ছাড়াই দাফন করা হয়েছে, তা নিয়ে সন্দেহ বাড়ছে। ভূমিষ্ট শিশু সন্তানের কবরটি এক পীরের সন্তান বলে দাবি করা হচ্ছে। ঐ ভন্ড পীর গ্রামের বিলকিসের কন্যাকে বিয়ে করে। তাদের বিয়ের ফসল নাকি এই শিশু সন্তান।

জানা যায়, সামাজিক বিশৃঙ্খলা,মাদকের আসর বসানো,অনৈতিক কার্যকলাপ,প্রতিনিয়ত রাতব্যাপী বাদ্যযন্ত্রের বিকট শব্দে মানুষের ঘুম হারাম করাসহ ঐ গ্রামের বিলকিসের বিভিন্ন অপকর্মের দরুন ৩ বছর পূর্বেই চাপড়াইল সমাজের অধিকাংশ মানুষ আলাদা হয়ে ছিল। ২০০ শত মানুষের স্বাক্ষর সম্বলিত বিলকিস গংদের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগও দেওয়া হয়েছিল ডিসি,এসপি, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা,সমাজসেবা অধিদপ্তর, ইউএনও এবং ইউনিয়ন পরিষদ বরাবর।চেয়ারম্যান সাহেব এলাকায় এসে কিছু মানুষের কু -পরামর্শে বিচার হবে বলে প্রহসন করা হলো। তারপরের ইতিহাস সবাই জানেন। প্রশ্ন হলো তাকে সমাজে পুনর্বাসিত করলো কারা? বিচার তাদের আগে করেন তারপর  বিচ্ছিন্ন হবার কথা বলা উচিৎ। আজ যে নাটকের মঞ্চায়ন করা হচ্ছে, দু’দিন পর তারাই আবার দর্শক বনে যাবে। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী যথাযথ কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.