আইনজীবীকে বাসায় ডেকে আপত্তিকর ভিডিও, আটক ৪

সংবাদ জমিন অনলাইন

ফরিদপুরে এক আইনজীবীর (৪২) সঙ্গে নারীর আপত্তিকর ছবি তুলে ও ভিডিও করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করা প্রতারক চক্রের চার সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাব। গত সোমবার রাতে সালথা উপজেলার ফুকরা ও ফরিদপুর শহরের চরকমলাপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

এ ঘটনা ওই আইনজীবী ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্পে জানিয়ে সহায়তা চান। র‌্যাব বিষয়টির ছায়াতদন্ত শুরু করে। প্রাথমিক তদন্তে সত্যতা পাওয়ায় চারজনকে আটক করা হয়।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে, এ ঘটনার সঙ্গে ফরিদপুরের সালথার মো. ফিরোজ মল্লিক (২১), সালথার ময়েনদিয়ার পারভীন আক্তার সাথী (২৭), সালথার তুঘলদিয়ার মো. রবি হাসান রানা (১৯) ও ঢাকার আশুলিয়ার পলাশবাড়ী এলাকার লাবিবা আক্তার (২১) জড়িত। তারা ফরিদপুর শহরের চরকমলাপুর মহল্লার ফয়সালের বাসায় ভাড়া থাকে।

ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক দেবাশীষ কর্মকার বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে গত সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে সালথা উপজেলার ফোকরা গ্রাম থেকে মো. ফিরোজ মল্লিক ও পারভীন আক্তারকে এবং ফরিদপুর শহরের চরকমলাপুরে ভাড়া বাসা থেকে মো. রবি হাসান রানা ও লাবিবা আক্তারকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানায়, তারা একটি প্রতারক চক্র। কখনো প্রেমের অভিনয়, কখনো কাজের কথা বলে তারা বিভিন্ন সময় পুরুষদের বাসায় ডেকে আনে। তাদের অন্য সহযোগীরা ভয়ভীতি দেখিয়ে আপত্তিকর ছবি তুলে রাখে এবং তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে চাঁদা আদায় করে।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম বলেন, এ ব্যাপারে মঙ্গলবার সকালে কোতোয়ালি থানায় চাঁদাবাজি ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেছেন ওই আইনজীবী। এ মামলায় দুই নারীসহ ওই চারজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে গতকাল বিকেলে জেলার মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.