আইসিসির কাছ এবার বিসিবি পাচ্ছে ৭ মিলিয়ন ডলার

অনলাইন ডেস্ক ঃঃ

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আয়ের অন্যতম উৎস টিম স্পন্সর, সিরিজ স্পন্সর, টিভি স্বত্ব, মাঠের বিজ্ঞাপন। তবে সবচেয়ে বড় আয়ের উৎস ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) লভ্যাংশের ভাগ। এবার আইসিসির মোট আয়ের শতকরা ৭.২ ভাগ পাচ্ছে বিসিবি। যার আর্থিক মূল্য ১২৮ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ১ হাজার ৮৮ কোটি টাকা। তবে এই মোটা অঙ্কের লভ্যাংশ এক সঙ্গে পাচ্ছে না বিসিবি। প্রতি বছরই আইসিসির বার্ষিক আয়-ব্যয়ের পর টাকা পায় বিসিবি।

এ বছর বাংলাদেশের ভাগে পড়েছে ৭ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৬০ কোটি টাকা। আইসিসির লভ্যাংশের ভাগ সব পূর্ণ সদস্য এবং সহকারী দেশগুলো সমান ভাবে পায় না। আইসিসির আয়ে যাদের যোগান বেশি তারাই বেশি লভ্যাংশ পায়। আর আইসিসির মোট আয়ের ৮৬ শতাংশ যায় পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর ভাগে। আর সহযোগী দেশগুলো পায় বাকি ১৪ শতাংশ। মূলত আইসিসি’র আয়ের প্রধান উৎস টিভি স্বত্ব। ২০১৫ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত আইসিসি তাদের টিভি স্বত্ব বিক্রি করে দিয়েছে। এই টিভি স্বত্ব এখন আছে স্টার ইন্ডিয়ার হাতে। এই অর্থই ভাগ করে দেয়া হচ্ছে পূর্ণ সদস্য এবং সহযোগী দেশগুলোকে। এর বেশিরভাগ অর্থই যাচ্ছে ভারতের পকেটে। তারা পাচ্ছে আইসিসির আয়ের ২২.৮ ভাগ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.